চীন বানাচ্ছে ১০০০ স্কুল এবং ফরাসি প্রধানমন্ত্রী জানালেনঃবিদ্যুৎ গতিতে ছড়িয়ে পড়ছে ওমিক্রন

চীন বানাচ্ছে ১০০০ স্কুল

ইরাকে এক হাজার স্কুল বানাচ্ছে চীন। এ বিষয়ে দুই দেশের মধ্যে ১৫টি চুক্তি হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার (১৬ ডিসেম্বর) ইরাকি প্রধানমন্ত্রী মুস্তফা আল-কাধিমির উপস্থিতিতে চুক্তিতে সই করেছে সংশ্লিষ্ট পক্ষগুলো।

চীন বানাচ্ছে ১০০০ স্কুল
চীন বানাচ্ছে ১০০০ স্কুল

ইরাকি সংবাদমাধ্যম এর খবরের থেকে জানা যায়, ওই অনুষ্ঠানের মধ্যে চীনের পক্ষ হতে উপস্থিত ছিলেন পাওয়ার কনস্ট্রাকশন করপোরেশন অব চায়নার (পাওয়ার চায়না) ভাইস প্রেসিডেন্ট লি ডেজ, যার প্রতিষ্ঠান ৬৭৯টি স্কুল তৈরি করবে আর সিনোটেকের আঞ্চলিক পরিচালক কু জুন, তৈরি করবে ৩২১টি স্কুল। ইরাকের পক্ষ থেকে প্রতিনিধিত্ব করেন স্কুল নির্মাণে উচ্চতর কমিটির নির্বাহী পরিচালক কারার মুহাম্মদ।

গত বছর সই হওয়া এক সমঝোতা স্মারকের পরিপ্রেক্ষিতে ইরাকের বিভিন্ন এলাকায় এসব স্কুল তৈরি করছে চীন। তবে দেশটিতে চীনা কর্মকর্তাদের নিরাপত্তা নিয়ে এখনো কিছুটা উদ্বেগ রয়েছে।

 গত নভেম্বরে ইরাকের সামরিক কর্তৃপক্ষ দেশটিতে স্কুল নির্মাণকারী চীনা প্রতিষ্ঠানগুলোকে রক্ষায় নিরাপত্তা সতর্কতার কথা জানিয়েছিল।

ইরাকের জয়েন্ট অপারেশন কমান্ড বলেছে, দেশটির ডেপুটি অপারেশন কমান্ডার লেফটেন্যান্ট জেনারেল আব্দুল-আমির আল-শামারি চীনা প্রতিষ্ঠানগুলোর নিরাপত্তা নিশ্চিত করার বিষয়ে ডেপুটি অপারেশন কমান্ডার ও পুলিশ কমান্ডারদের সঙ্গে দেখা করেছেন এবং সব ইউনিটকে সতর্ক থাকার নির্দেশ দিয়েছেন।

আরো জানুন:

গুরুকুল লাইভ: দাম কমলো স্বর্ণের এবং রাজধানীর যেসব সড়ক,এড়িয়ে চলবেন।

ফরাসি প্রধানমন্ত্রী জানালেন:বিদ্যুৎ গতিতে ছড়িয়ে পড়ছে ওমিক্রন

ইউরোপে বিদ্যুৎ গতিতে ছড়িয়ে পড়ছে করোনার ভাইরাসের অতি সংক্রামক ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রন। ফলে আগামী বছরের শুরুতে ফ্রান্সে দাপট দেখাতে পারে বলে সতর্ক করেছেন ফরাসি প্রধানমন্ত্রী জ্যঁ ক্যাসটেক্স। শুক্রবার যুক্তরাজ্য থেকে ফ্রান্সে প্রবেশে কড়াকড়ি আরোপের পর এমন বার্তা দেন তিনি।

ফরাসি প্রধানমন্ত্রী জানালেনঃবিদ্যুৎ গতিতে ছড়িয়ে পড়ছে ওমিক্রন copyright free image form pixabay.com
ফরাসি প্রধানমন্ত্রী জানালেনঃবিদ্যুৎ গতিতে ছড়িয়ে পড়ছে ওমিক্রন

শুক্রবার পর্যন্ত যুক্তরাজ্যে সর্বোচ্চ ওমিক্রনে শনাক্ত হয়েছে প্রায় ১৫ হাজার মানুষ। এছাড়া সবশেষ দেশটিতে ৯৩ হাজারের বেশি করোনায় শনাক্তের খবর পাওয়া গেছে। সংক্রমণের বিস্তার রোধে দেশটি থেকে ফ্রান্স ভ্রমণে বিধিনিষেধ আরোপ করেছে ফরাসি সরকার।

ওমিক্রনের সংক্রমণ মোকাবিলায় একইদিন নেদারল্যান্ডস, আয়ারল্যান্ড এবং জার্মানিতেও অতিরিক্তি বিধিনিষেধ ঘোষণা করা হয়েছে। শুক্রবার জার্মানিতে করোনায় শনাক্ত হয়েছে ৫০ হাজার মানুষ।

 পরিস্থিতি অবনতি হতে থাকায় ব্রিটিশ পর্যটক ও ব্যবসায়ীদের জন্য ফ্রান্সের সীমান্ত বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। এতে ডোভার বন্দর এবং ইউরোস্টার টার্মিনালে গাড়ির দীর্ঘ জটলা সৃষ্টি হয়।

ফরাসি প্রধানমন্ত্রী বলেন, সংক্রমণ রোধেই ধারাবাহিকভাবে বিধিনিষেধ আরোপ করা হচ্ছে। সামনে সরকার নতুন পদক্ষেপ নেবে। কারণ যারা এখনও যারা টিকা নেয়নি তাদের কারণে পুরো দেশকে ঝুঁকিতে ফেলতে পারি না।  মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনও গতকাল নিজ দেশের নাগরিকদেরকে টিকা নেওয়ার ওপর গুরুত্ব আরোপ করেছেন।

বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা

করোনা ভাইরাস প্রাণঘাতী হওয়ায় গত ২৪ ঘণ্টায় ৭ লাখ ২৭ হাজার ৯৮৬ জন বিশ্বের মধ্যে আক্রান্ত হয়েছেন ও এই রোগের কারনে মৃত্যু হয়েছে ৬ হাজার ৯৮১ জন। বিশ্বজুড়ে করোনায় আক্রান্ত, মৃত্যু আর সুস্থতার হালনাগাদ এর এ সকল তথ্য প্রদানকারী ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটার্স দ্বারা এ তথ্য জানিয়েছে ।

অবশ্য আগের দিনের তুলনায় আক্রান্ত-মৃত্যুর সংখ্যা কিছু কম। আগের দিন বিশ্বে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে নতুন রোগীর সংখ্যা ছিল ৭ লাখ ৪২ হাজার ৩০৪ জন আর এ রোগে মারা গিয়েছিলেন ৭ হাজার ৪৪১ জনের।

ওয়ার্ল্ডোমিটার্স এর তথ্য অনুযায়ী, শুক্রবার করোনায় দৈনিক আক্রান্ত এবং মৃত্যুর সংখ্যা হিসেবে বিশ্বের দেশগুলোর মধ্যে শীর্ষে ছিল যুক্তরাষ্ট্র। এই দিন দেশটির মধ্যে এ রোগে আক্রান্ত হয়েছেন ১ লাখ ৬২ হাজার ৬৯২ জন আর মৃত্যু হয়েছে ১ হাজার ৬০৫ জনের।

বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা copyright free image form pixabay.com
বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা

যুক্তরাষ্ট্র ছাড়াও অন্যান্য যেসব দেশের মধ্যে করোনার দৈনিক সংক্রমণ আর মৃত্যুর সংখ্যা বেশি ছিল, সে দেশগুলোর হলো- যুক্তরাজ্য ( ৯৩ হাজার নতুন আক্রান্ত ৪৫, মৃত্যু ১১১), ফ্রান্স ( ৫৮ হাজার নতুন আক্রান্ত ১২৮, মৃত্যুর সংখ্যা ১৬২), জার্মানি (নতুন আক্রান্ত ৪৮ হাজার ৩৭৫, মৃত্যুর সংখ্যা৪৫২), স্পেন (নতুন আক্রান্ত ৩৩ হাজার ৩৫৯, মৃত্যুর সংখ্যা ৪১), রাশিয়া (নতুন আক্রান্ত ২৭ হাজার ৭৪৩, মৃত্যুর সংখ্যা হয়েছে ১ হাজর ৮০) এবং ইতালি (নতুন আক্রান্ত ২৮ হাজার ৬৩২, মৃত্যুর সংখ্যা  হয়েছে ১২০)।

বিশ্বের মধ্যে করোনা ভাইরাসে মোট আক্রান্তের সংখ্যা এখন বর্তমানে এখন হয়েছে ২৭ কোটি ৩৯ লাখ ৫৮ হাজার ১৩০ জন, মোট মৃত্যুর সংখ্যা বর্তমানে পৌঁছে গিয়েছে ৫৩ লাখ ৬০ হাজার ৪১০ জনে।

এছাড়া, করোনা থেকে সুস্থ হয়ে উঠেছেন মোট ২৪ কোটি ৫৮ লাখ ২৬ হাজার ৩৫৫ জন। বর্তমানে বিশ্বজুড়ে সক্রিয় করোনা রোগী আছেন ২ কোটি ২৭ লাখ ৭১ হাজার ৩৫৯ জন।

২০১৯ সাল এর ডিসেম্বরের মধ্যে চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহরের মধ্যে বিশ্বের প্রথম করোনায় আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছিলো। করোনার কারনে প্রথম মৃত্যুর ঘটনাটিও ঘটেছিল চীনে।

তারপর বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ছড়িয়ে পড়তে শুরু করে প্রাণঘাতী এই ভাইরাস। পরিস্থিতি সামাল দিতে ২০২০ সালের ২০ জানুয়ারি বিশ্বজুড়ে জরুরি অবস্থা জারি করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

কিন্তু তাতেও অবস্থার কোন ধরনের উন্নতি না হওয়ায় অবশেষে ওই বছরের ১১ মার্চ করোনা ভাইরাসকে মহামারি হিসেবে ঘোষণা করে ডব্লিউএইচও।

[চীন বানাচ্ছে ১০০০ স্কুল এবং ফরাসি প্রধানমন্ত্রী জানালেনঃবিদ্যুৎ গতিতে ছড়িয়ে পড়ছে ওমিক্রন]

অন্যান্য খবর সম্পর্কে জানুন:

প্রথম আলো: অমিক্রনের বিরুদ্ধে ৮৫ শতাংশ কার্যকর বুস্টার ডোজ

আমাদের সাথে যোগাযোগ